Tips and Tricks

ঝিঙে – যদি আপনি সুস্থ থাকতে চান, তাহলে আজই মাস্ট  ঝিঙে খাওয়া  শুরু করুন

ঝিঙে – যদি আপনি সুস্থ থাকতে চান, তাহলে আজই মাস্ট  ঝিঙে খাওয়া  শুরু করুন !

ঝিঙে গ্রীষ্মকালীন পুষ্টিকর একটি সবজি। ঝিঙে দুই রকমের হয়ে থাকে একটি তেতো ও অন্যটি মিষ্টি। এর বৈজ্ঞানিক নাম : লুকা অ্যাকুটিঙ্গুলা।

ঝিঙের পুষ্টিগুণ : প্রতি ১০০ গ্রাম ঝিঙেতে আছে ০.৫ গ্রাম আমিষ, ৩.৪ গ্রাম শর্করা, ০.৫ মি. গ্রাম আঁশ, ০.১ মি. গ্রাম চর্বি, ১৭ কিলোক্যালরি শক্তি, ১৮ মি. গ্রাম ক্যালসিয়াম, ২৬ মি. গ্রাম ফসফরাস ০.৩৯ মি. গ্রাম লৌহ, ৩৩ মাইক্রোগ্রাম ক্যারোটিন ও ভিটামিন বি-কমপেক্স।

ঝিঙের স্বাস্থ্য উপকারিতা 

১) ঝিঙেতে খুব কম ক্যালরি রয়েছে। ফলে, ওজন কমায়, কোলেস্টেরল-ও নিয়ন্ত্রণে রাখে! প্রচুর পরিমাণে জল রয়েছে, কাজেই ঝিঙে খেলে বারবার খাওয়ার ইচ্ছে যাকে আমরা বলি ‘চোখের খিদে’ কমে যায়। তাই ডায়েটিং করলে, অবশ্যই খাবারের তালিকায় ঝিঙে রাখুন।

২) ঝিঙের লতার শিকড় গরুর দুধে বা ঠান্ডা পানিতে ঘষে সকাল বেলা তিন দিন খেলে পাথুরি রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৩) ঝিঙে রক্তকে দূষণ থেকে রক্ষা করে। লিভারের জন্যও উপকারি। ঝিঙের রস খেলে লিভারের কর্মক্ষমতা বাড়ে। বিশেষ করে লিভারে অ্যালকোহলের ক্ষতিকর প্রভাব দূর করে। জন্ডিসের আদর্শ পথ্যও ঝিঙে।

৪) শুকনো ঝিঙের গুঁড়ো নস্যের মতো করে নাকে ব্যবহার করলে মাথা ব্যথা সেরে যায়।

৫) শোথ বা ফোলার কারণে প্রস্রাব কমে গেলে ঝিঙের রস গরম করে খেলে উপকার পাওয়া যায়।

৬) এর পাতার রস বাহ্যিক ব্যবহারে দাদ নিরাময় হয়।

৭) ঝিঙে ফাইবারে ভরপুর! কাজেই কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে। অ্যাসিডিটি ও আলসার সারায়। পাকস্থলীর কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে খাবার হজমে সাহায্য করে। পাইলস-এও খুব উপকারি!

৮) ঝিঙে প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক। শরীরের বিষাক্ত উপাদান বা টক্সিন বের করে দেয়।

৯) তেতো ঝিঙে ও শেস্মা নাশ করে। শূল, গুল্ম ও অর্শ রোগের বিশেষ উপকারী।

১০) তেতো ঝিঙের মধ্যে রয়েছে জোলাপের গুণ অর্থাৎ তেতো ঝিঙে পেট পরিস্কার করে, বমন কমাতে সাহায্য করে।

১১)  নিয়মিত ঝিঙে খেলে ত্বক ভাল থাকে। বিভিন্ন রোগজীবাণু, ভাইরাস-ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ থেকে শরীরকে রক্ষা করে।

১২)ঝিঙেতে রয়েছে পেপটাইড এনজাইম যা সুগার কমায়, রক্তে ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। ফলে ডায়াবিটিক রোগিদের জন্য ঝিঙে মহৌষধ!

১৩) ঝিঙের রং দেখতে পিত্ত রসের মতো। তাই ঝিঙে খেলে পিত্তথলির সমস্যা দূর করে।

১৪) ঝিঙ্গে ওজন কমাতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন –  এই ৫ প্রকার ওমলেট-ই করে তুলতে পারেন আপনাকে আরও স্বাস্থ্যকর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker